সুশাসনের ধারণা | Concept of Good Governance

আচ্ছালামু আলাইকুম প্রিয় দর্শক - দৈনিক শিক্ষা ব্লগর পক্ষ থেকে আপনাকে স্বাগতম। আজকে আমি আপনাদের মাঝে সুশাসনের ধারণা | Concept of Good Governance নিয়ে আলোচনা করব।

সুশাসনের ধারণা Concept of Good Governance

সুশাসনের ধারণা বর্তমান বিশ্বায়নের যুগে রাষ্ট্র পরিচালনায় একটি অতি উত্তম ব্যবস্থা হিসেবে বিবেচিত। এর মাধ্যমে রাষ্ট্র পরিচালনার দিক নির্দেশনা, রাষ্ট্র ও জনগণের মধ্যে সম্পর্কের ধরন সুস্পষ্টভাবে তুলে ধরা হয়। মূলত সুশাসন হলো কোনো রাষ্ট্রীয় কার্যাবলি পরিচালনার পদ্ধতি। এ ধারণার মাধ্যমে শাসক ও শাসিতের মধ্যে সম্পর্কের স্বরূপ বিশ্লেষণ করা হয়।

এছাড়া জাতীয় রাজনীতির ধারা ও আইনের স্বরূপও সুশাসনের মাধ্যমে স্পষ্ট হয়ে ওঠে। সাম্প্রতিক কালে দাতা সংস্থা এবং রাষ্ট্রগুলোর পারস্পরিক সম্পর্ক অনেকাংশে সুশাসনের ওপর নির্ভরশীল। উন্নয়নশীল দেশের প্রশাসন ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য সুশাসন একান্ত আবশ্যক। জনস্বার্থে সরকার ও প্রশাসনকে ব্যবহার করার জন্য সুশাসনের কোনো বিকল্প নেই।

সুশাসন আধুনিক বিশ্বে একটি গতিশীল ও চলমান সামাজিক ধারণা। সুশাসন ধারণাটি বিশ্বব্যাংকের উদ্ভাবিত। ১৯৮৯ সালে বিশ্বব্যাংকের একটি সমীক্ষায় সর্বপ্রথম 'সু' প্রত্যয়টি ব্যবহার করা হয়। শাসন-এর সাথে 'সু' প্রত্যয় যোগ করে 'সুশাসন' (Good Governance) শব্দটির প্রকাশ ঘটানো হয়েছে। এর ফলে সুশাসনের অর্থ দাঁড়িয়েছে নির্ভুল, দক্ষ ও কার্যকর শাসন। সুশাসন চারটি প্রধান স্তম্ভের ওপর নির্ভরশীল।

২০০০ সালে বিশ্বব্যাংক তা প্রকাশ করে। এ চারটি স্তম্ভ হলো- (১) দায়িত্বশীলতা, (২) স্বচ্ছতা, (৩) আইনি কাঠামো ও (৪) অংশগ্রহণ। সুশাসন শাসনব্যবস্থার রাজনৈতিক, সামাজিক, অর্থনৈতিক এবং আন্তর্জাতিক অবস্থার কথা বিবেচনা করে। মূলত বলিষ্ঠ, ন্যায়ানুগ উন্নয়নকে পৃষ্ঠপোষকতা করার জন্য একটি সুষ্ঠু নীতিমালার মাধ্যমে অনুকূল পরিবেশ তৈরি করা এবং সেই পরিবেশকে টেকসই করে অব্যাহতভাবে বজায় রাখা হলো সুশাসন।

The Oxford English Dictionary-তে 'শাসনের প্রক্রিয়া, শাসনের ক্ষমতা ও কর্তৃত্ব, ব্যবস্থাপনা কৌশল এবং নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা হিসেবে সুশাসনকে চিহ্নিত করা হয়েছে।' আদ্রিয়ান লেফটউইচ (Adrian Leftwich)-এর মতে, 'সুশাসন বলতে অবাধ প্রতিযোগিতামূলক অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নয়ন করা, গণতন্ত্রায়ণ ও মানবাধিকার বিষয়ে উন্নয়ন করাকে বোঝায়।

জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান (Kofi Atta Annan) বলেন- 'সুশাসন মানবাধিকার ও আইনের শাসনের প্রতি শ্রদ্ধা নিশ্চিত করে, গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করে, লোকপ্রশাসনের স্বচ্ছতা ও সক্ষমতা প্রবর্তন করে।' (Good Governance is ensuring respect for human rights and the rule of law, strengthening democracy, promoting transparency and capacity in public administration.)

বিশ্বব্যাংক (World Bank) এর মতে, 'সুশাসন হচ্ছে এমন একটি প্রক্রিয়া যেখানে উন্নয়নের লক্ষ্যে একটি দেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক সম্পদ ব্যবস্থাপনার জন্য ক্ষমতা প্রয়োগ করা হয়।' (Good Governance is a manner in which power is exercised in the management of a country's economic and social resources for development.) একটি উন্নয়ন সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিশ্বব্যাংক সর্বপ্রথম উন্নয়নের প্রেক্ষাপটে 'সুশাসন' ধারণাটিকে গুরুত্বপূর্ণ করে তোলে।

এতে উন্নয়নশীল দেশের অনুন্নয়ন চিহ্নিত করার পাশাপাশি বলা হয় যে, সুশাসনের অভাবেই এরূপ অনুন্নয়ন ঘটেছে। শুধু তাই নয়, সুশাসন নিশ্চিতকরণের জন্য যে সব শর্ত রয়েছে তা পূরণের শর্তে বিশ্ব ব্যাংক ও আন্তর্জাতিক সংস্থাসমূহের ঋণ সাহায্য ও প্রকল্প সাহায্য কার্যক্রমও পরিচালনা করা হয়।

UNDP-এর মতে- 'একটি দেশের সার্বিক স্তরের কার্যাবলি পরিচালনার জন্য অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক এবং প্রশাসনিক কর্তৃত্বের চর্চার বা প্রয়োগের পদ্ধতিই হলো সুশাসন।' (Good Governance is the exercise of economic, Political and administrative authority to manage a country's affairs at all levels.) সুশাসন সম্পর্কে ম্যাক করনি (Mac Corney) বলেন, 'সুশাসন বলতে, রাষ্ট্রের সাথে সুশীল সমাজ, সরকারের সাথে শাসিত জনগণের, শাসকের সাথে শাসিতের সম্পর্ককে বোঝায়।

ডি. কে. চোপড়া (V. K. Chopra) বলেন, 'সুশাসন হলো শাসনের একটি পদ্ধতি যা সমাজের মৌলিক মূল্যবোধগুলো দ্ব্যর্থহীনভাবে চিহ্নিত করতে সমর্থ, সেখানে মূল্যবোধগুলো হচ্ছে মানবাধিকারসহ অর্থনেতিক, রাজনৈতিক এবং সামাজিক-সাংস্কৃতিক বিষয়ক এবং একটি দায়বদ্ধ ও সৎ প্রশাসনের মাধ্যমে এই মূল্যবোধগুলো অন্বেষণ করা।' (Good governance is a system of governance that is able to Unambiguously identify the basic values of the society where values are economic, political and socio-culture issues including human rights and pursue these values through and accountable and honest administration.)

জি. বিলনে (G. Bilney)-এর মতে- 'সুশাসন বলতে একটি দেশের সামাজিক ও অর্থনেতিক সম্পদের কার্যকর ব্যবস্থাপনাকে বোঝায়, যেটা সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে, স্বচ্ছ ও জবাবদিহিমূলক হবে এবং সবার জন্য সমান সম্পদ ভোগের ব্যবস্থা থাকবে।' (Good Governance is the efficetive management of a country's Social and economic resources in a manner that is open, transparent, accountable and equitable.) ল্যান্ডিল মিল (Landell Mill) এর মতে, 'সুশাসন হলো এমন এক অন্তর্নিহিত ভাষা ও আবরণের কাঠামো যা উত্তম শাসনকে এগিয়ে নিতে কাজ করে।

সুতরাং উল্লিখিত আলোচনার প্রেক্ষিতে বলা যায়, সুশাসন হলো এমন একটি প্রক্রিয়া সেখানে সমাজের প্রত্যাশা ও রাষ্ট্রের কর্মকাণ্ডের মধ্যে সুসামঞ্জস্য খুঁজে পাওয়া যায়। এই ব্যবস্থায় শাসক শুধু শাসনই করেন না বরং সুশৃঙ্খল ও নিয়মতান্ত্রিক শাসনব্যবস্থা বজায় রাখারও চেষ্টা করেন। তাই সুশাসন হলো সরকার ও জনগণের শুভ চিন্তা-চেতনা ও প্রচেষ্টার অভিব্যক্তি।

আপনার আসলেই দৈনিক শিক্ষা ব্লগর একজন মূল্যবান পাঠক। সুশাসনের ধারণা | Concept of Good Governance এর আর্টিকেলটি সম্পন্ন পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ ধন্যবাদ। এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনার কেমন লেগেছে তা অবশ্যই আমাদের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url