মূল্যবোধের ধারণা - Concept of Values

আচ্ছালামু আলাইকুম প্রিয় দর্শক - দৈনিক শিক্ষা ব্লগর পক্ষ থেকে আপনাকে স্বাগতম। আজকে আমি আপনাদের মাঝে মূল্যবোধের ধারণা - Concept of Values নিয়ে আলোচনা করব।

মূল্যবোধের ধারণা - Concept of Values

সমাজকাঠামোর অবিচ্ছেদ্য উপাদান হলো মূল্যবোধ (Values)। যে চিন্তাভাবনা, লক্ষ্য, উদ্দেশ্য ও সংকল্প মানুষের সামগ্রিক আচার-ব্যবহার ও কর্মকাণ্ডকে নিয়ন্ত্রিত ও পরিচালিত করে, তাকেই সাধারণত মূল্যবোধ বলা হয়। মূল্যবোধ হলো সমাজ যে বিষয়গুলোর ওপর মূল্য আরোপ করে কিংবা আমরা যাকে মূল্য দেই।

মূল্যবোধ নির্ধারিত হয় সমাজের মানুষের আচার-আচরণ তথা সামষ্টিক গ্রহণযোগ্য রীতিনীতি ও নৈতিকতার দ্বারা। মানুষের সামাজিক সম্পর্ক ও আচার- আচরণ প্রত্যক্ষভাবে নিয়ন্ত্রণের জন্য সব সমাজেই বিভিন্ন ধরনের বিধিনিষেধ তথা মূল্যবোধ প্রচলিত থাকে। সমাজবিজ্ঞানী আরটি পোপেনোও মূল্যবোধ সম্পর্কে একই কথা বলেছেন।

তিনি বলেন, 'ভালো-মন্দ, ঠিক-বেঠিক, কাঙ্ক্ষিত - অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয় সম্পর্কে সমাজের সদস্যদের যে ধারণা তার নামই মূল্যবোধ।' (Idea shared by members of a society without what is good and bad, right and wrong, desirable and undesirable.) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সমাজবিজ্ঞানের অধ্যাপক ও লেখক স্টুয়ার্ট সি ডড (Stuart C Dodd)-এর কথায় মূল্যবোধ হলো সেই সকল রীতি-নীতির সমষ্টি যা ব্যক্তি সমাজের কাছ থেকে পেতে চায় এবং যা সমাজ ব্যক্তির কাছ থেকে লাভ করে।

অর্থাৎ মূল্যবোধ হচ্ছে সমাজে প্রচলিত কিছু ধারণা, বিশ্বাস ও রীতিনীতির সমষ্টি যা দ্বারা সমাজে বসবাসরত জনসাধারণ প্রভাবিত হন বা নিয়ন্ত্রিত হন। আবার জনগণের আচার, ব্যবহার ও রীতি-নীতিও সমাজে প্রচলন ঘটে। সমাজে প্রচলনের ফলে সেটি আবার সামাজিক মূল্যবোধ হিসেবে বিকাশ লাভ করে। একেক সমাজের মূল্যবোধ একেক রকম। এক সমাজে যেটি ভালো মূল্যবোধ হিসেবে মানা হয়, অন্য সমাজে সেটি নিন্দনীয় মূল্যবোধের বিষয় হতে পারে।

গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে মূল্যবোধ বা সামাজিক মূল্যবোধ বিকশিত হওয়ার ফলে ব্যক্তি আত্মবিকাশ ও আত্মউন্নয়নের সুযোগ পায়। সামাজিক মূল্যবোধগুলোর ওপর ভিত্তি করে গড়ে ওঠে একটি জাতির সভ্যতা, সংস্কৃতি, ঐতিহ্য ও গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ব্যবস্থা।

সামাজিক মূল্যবোধ নিজের প্রতি, সমাজের প্রতি, দেশের প্রতি কর্তব্য ও দায়িত্ব পালনের প্রেরণা যোগায়। এইচ ডি স্টেইন (H D Stein)-এর মতে, 'জনগণ যার সম্বন্ধে আগ্রহশীল, যা তারা কামনা করে, যাকে তারা অত্যাবশ্যক বলে মনে করে, যার প্রতি তাদের গভীর শ্রদ্ধা রয়েছে এবং যা করতে তারা আনন্দ পায় তাই হচ্ছে মূল্যবোধ'।

সমাজবিজ্ঞানী এফ.ই. মেরিল (F. E. Meril) বলেন- 'সামাজিক মূল্যবোধ হচ্ছে বিশ্বাসের এক প্রকৃতি বা ধরন, যা গোষ্ঠীগত কল্যাণে সংরক্ষণ করাকে মানুষ গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করে।' (A Social Value may be defined as a pattern of belief whose maintenance is considered important to group welfare.) এম. ডব্লিউ পামফ্রে (M. W.Pumphrey)-এর মতে-'ব্যক্তি বা সামাজিক দলের প্রত্যাশিত আচার-আচরণের সুবিন্যস্ত প্রকাশই হলো মূল্যবোধ।' (Formulation of performed behaviour held by individual or social group.)

নিকোলাস রেসার (Nicholas Rescher) লিখেছেন, 'মূল্যবোধ হচ্ছে সে সকল গুণ যা ব্যক্তি নিজের সহকর্মীদের মধ্যে দেখে আনন্দিত হন এবং নিজস্ব সমাজ, জাতি, সংস্কৃতি ও পরিবেশের পক্ষে মূল্যবান মনে করে খুশি হন। এ সংজ্ঞাগুলোর আলোকে বলা যায় যে-

ক. মূল্যবোধ হলো ভালো বা মন্দ সম্পর্কে সামাজিক ধারণা;
খ. কাঙ্ক্ষিত বা অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয় সম্পর্কে সমাজের বিশ্লেষণমূলক রায়;
গ. সামাজিক সদস্যদের সাধারণ আচরণ; যাতে আবেগ বিদ্যমান।

মূল্যবোধের বৈশিষ্ট্য
মূল্যবোধের ধারণা ও প্রকৃতি বিশ্লেষণ করলে নিচে বর্ণিত বৈশিষ্ট্যগুলো সুস্পষ্ট হয়ে ওঠে:

১. পরিবর্তনশীলতা: পরিবর্তনশীলতা মূল্যবোধের একটি প্রধান বৈশিষ্ট্য। সামাজিক পরিবর্তনের সাথে মূল্যবোধেরও পরিবর্তন ঘটে। বর্তমানে যে মূল্যবোধ আমাদের নিকট আকর্ষণীয় বলে গৃহীত হয়, কালের আবর্তে তাই আবার নিতান্ত অগ্রহণযোগ্য বলে মনে হয়।

যেমন- পূর্বে আমাদের দেশে একান্নবর্তী যৌথ পরিবারই ছিল স্বাভাবিক কিন্তু এখন আমরা একক পরিবারকে উত্তম বলে মনে করছি। সুতরাং এটি স্পষ্টতই প্রতীয়মান হচ্ছে যে, মূল্যবোধ ক্রমশ পরিবর্তনশীল। সামাজিক চাহিদার ওপর ভিত্তি করে এটি পরিবর্তিত হয়।

২. বিভিন্নতা: মূল্যবোধের অপর একটি উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য হলো 'বিভিন্নতা'। মূল্যবোধ বিভিন্ন সমাজে বিভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে। যেমন- পাশ্চাত্য দেশসমূহে মদপান নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার, কিন্তু আমাদের সমাজে এটি ঘৃণার কাজ। তাই দেখা যায় যে, মূল্যবোধ স্থান-কাল-পাত্রভেদে বিভিন্ন রূপ পরিগ্রহ করে।

৩. একতা: মূল্যবোধ সমাজের মানুষকে ঐক্যসূত্রে আবদ্ধ করে। একই রীতি-নীতি, আচার-আচরণ ও মূল্যবোধের অনুশীলনের মাধ্যমে সমাজের সকলে প্রীতির বন্ধনে আবন্ধ থাকে।

৪. সামাজিক নৈতিকতা: মূল্যবোধ কোনো প্রকার সামাজিক বিধান বা আইন নয়। এর বিরোধিতা করা বেআইনি নয়। এটি মূলত এক প্রকার সামাজিক নৈতিকতা। আর এ নৈতিকতার ক্ষেত্রে কোনোরূপ বাধ্যবাধকতা নেই বললেই চলে।

সমাজে বসবাসকারী মানুষের শ্রদ্ধাবোধই মূল্যবোধের ভিত্তিস্বরূপ। কখনো কখনো সামাজিক মূল্যবোধ আইনের চেয়েও কঠিন বলে মনে হয়। জনগণ মূল্যবোধকে ভাঙতে চায় না। যেমন: ব্রিটিশরা মূল্যবোধ ও প্রথাকে আইনের চেয়েও বেশি সম্মান করে।

৫. সামাজিক মানদণ্ড: মূল্যবোধ যদিও কোনো আইন বা আইনগত বিধি-বিধান নয় তথাপি এর ভিত্তিতেই মানুষের কাজের ভালো-মন্দ বিচার করা হয়। মূল্যবোধ মানুষের আচার-আচরণ নিয়ন্ত্রণ করার সামাজিক মানদণ্ডস্বরূপ।

৬. যোগসূত্র ও সেতুবন্ধন: মূল্যবোধ সমাজে যোগসূত্র ও সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করে। মূল্যবোধ সমাজকে এক ঐক্যসূত্রে আবদ্ধ করে। আচার-আচরণ, শিষ্টাচার, সততা, ন্যায়পরায়ণতা, সহনশীলতা, সহমর্মিতা প্রভৃতি মূল্যবোধের মাধ্যমেই সমাজের মানুষ সম্মিলিত হয় ও সমাজজীবনকে গতিশীল রাখে। সমাজের এক প্রজন্ম থেকে অপর প্রজন্মের মধ্যে সেতুবন্ধন হিসেবেও মূল্যবোধ ভূমিকা পালন করে।

৭. পরিবর্তনশীলতা: সমাজ সদা পরিবর্তনশীল। সমাজকে নির্দিষ্ট একটি গণ্ডির মধ্য দিয়ে পরিবর্তন করার ক্ষেত্রে ভূমিকা' পালন করে মূল্যবোধ। এটি ব্যক্তির ইচ্ছা-অনিচ্ছাকে সমাজ পরিবর্তনের সাধারণ গতির দিকে প্রবাহিত করে।

এজন্যই পরিবর্তনশীলতা মূল্যবোধের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। সমাজ প্রতিনিয়ত পরিবর্তিত হচ্ছে। সমাজের পরিবর্তনের সাথে সাথে মূল্যবোধেরও পরিবর্তন হয়। বিশেষ করে প্রযুক্তিগত বিদ্যা, নগরায়ণ এবং শিল্পায়নের ফলে মূল্যবোধের পরিবর্তন ঘটে।

সমাজে মূল্যবোধের ইতিবাচক পরিবর্তনের পাশাপাশি নেতিবাচক পরিবর্তনও ঘটে থাকে। মূল্যবোধের নেতিবাচক পরিবর্তনকে মূল্যবোধের অবক্ষয় বলা হয়। সুশৃঙ্খল পরিবেশ মূল্যবোধের বিকাশে সহায়ক ভূমিকা পালন করে এবং বিশৃঙ্খল পরিবেশ মূল্যবোধের অবক্ষয়ের কারণ বলে বিবেচিত হয়।

যে সমাজে মূল্যবোধের ধারণা যত বেশি উন্নত, সে সমাজ তত বেশি উন্নত ও প্রগতিশীল। সমাজে শান্তি-শৃঙ্খলা, ন্যায়বিচার, শ্রমের মর্যাদা, সহনশীলতা, সহমর্মিতা ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে মূল্যবোধ বিকাশের পথ সুগম হয়।

৮. নাগরিক চেতনা: সামাজিক মূল্যবোধের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো এটি নাগরিক চেতনা দ্বারা প্রতিষ্ঠিত। নাগরিক চেতনা স্বারা প্রতিষ্ঠিত বিধায় সামাজিক মূল্যবোধ নাগরিক চেতনা সৃষ্টি ও দেশের প্রতি কর্তব্য পালনে জনগণকে অনুপ্রাণিত করে।

আপনার আসলেই দৈনিক শিক্ষা ব্লগর একজন মূল্যবান পাঠক। মূল্যবোধের ধারণা - Concept of Values এর আর্টিকেলটি সম্পন্ন পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ ধন্যবাদ। এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনার কেমন লেগেছে তা অবশ্যই আমাদের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url