মার্শালের সংজ্ঞাটি ব্যাখ্যা কর

আচ্ছালামু আলাইকুম প্রিয় দর্শক - দৈনিক শিক্ষা ব্লগর পক্ষ থেকে আপনাকে স্বাগতম। আজকে আমি আপনাদের মাঝে মার্শালের সংজ্ঞাটি ব্যাখ্যা কর নিয়ে আলোচনা করব।

মার্শালের সংজ্ঞাটি ব্যাখ্যা কর

মার্শালের সংজ্ঞাটি ব্যাখ্যা কর। অথবা, মার্শালের সংজ্ঞাটি বৈশিষ্ট্যসহ লেখ। অধ্যাপক মার্শাল অর্থনীতির সংজ্ঞা দিতে গিয়ে বলেছেন, "অর্থনীতি মানুষের সাধারণ কার্যাবলি আলোচনা করে।" মানুষের সাধারণ কার্যাবলি হলো অর্থ উপার্জন বা সম্পদ আহরণ ও তার ব্যয়সংক্রান্ত কার্যাবলি, যার মাধ্যমে কল্যাণ 'সাধিত হবে।

তিনি বলেছেন, "অর্থনীতি একদিকে যেমন সম্পদ নিয়ে আলোচনা করে তেমনি অন্যদিকে অধিকতর গুরুত্বপূর্ণ দিক হিসেবে মানুষ সম্পর্কেও আলোচনা করে।" মার্শালের সংজ্ঞাটি বিশ্লেষণ করে এর বৈশিষ্ট্যগুলো ব্যাখ্যা করা হলো:

  1. মানবজীবনের সাধারণ কার্যাবলি: মানবজীবনের সাধারণ ও দৈনন্দিন কার্যাবলি যেমন- অর্থ উপার্জন, সম্পদ আহরণ, ব্যয় ইত্যাদি অর্থনীতির আওতাভুক্ত।
  2. সামাজিক বিজ্ঞান: মার্শাল অর্থনীতিকে সামাজিক বিজ্ঞান হিসেবে বিবেচনা করেছেন। এটি সমাজবদ্ধ মানুষের কার্যাবলি নিয়ে আলোচনা করে।
  3. মানবকল্যাণ: মার্শাল মানুষের ব্যক্তিগত বা সামাজিক কল্যাণ সাধনের উপর গুরুত্বারোপ করেছেন।
  4. বস্তুগত দ্রব্যঃ যেসব দ্রব্যের বাহ্যিক ব্যক্তিগত সত্তা বিদ্যমান শুধু তাদের সংগ্রহ ও ব্যবহার অর্থনীতির অন্তর্ভুক্ত।
  5. অর্থের মাধ্যমে পরিমাপযোগ্য: যেসব দ্রব্য অর্থের মাধ্যমে পরিমাপযোগ্য, যাদের মূল্য আছে, সেগুলোই অর্থনীতির বিবেচ্য বিষয়।

উপরিউক্ত আলোচনার শেষে বলা যায়, সামগ্রিক বিচারে মার্শালের সংজ্ঞা যথেষ্ট গুরুত্বের দাবিদার। কারণ তাঁর সংজ্ঞাটি বাস্তবতা বিবর্জিত নয়।

আপনার আসলেই দৈনিক শিক্ষা ব্লগর একজন মূল্যবান পাঠক। মার্শালের সংজ্ঞাটি ব্যাখ্যা কর এর আর্টিকেলটি সম্পন্ন পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ ধন্যবাদ। এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনার কেমন লেগেছে তা অবশ্যই আমাদের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url