খাজনা কাকে বলে? মোট খাজনা ও নিট খাজনা বা অর্থনৈতিক খাজনার মধ্যে পার্থক্য দাও

আচ্ছালামু আলাইকুম প্রিয় দর্শক - দৈনিক শিক্ষা ব্লগর পক্ষ থেকে আপনাকে স্বাগতম। আজকে আমি আপনাদের মাঝে খাজনা কাকে বলে? মোট খাজনা ও নিট খাজনা বা অর্থনৈতিক খাজনার মধ্যে পার্থক্য দাও নিয়ে আলোচনা করব।

খাজনা কাকে বলে? মোট খাজনা ও নিট খাজনা বা অর্থনৈতিক খাজনার মধ্যে পার্থক্য দাও

খাজনা কাকে বলে? মোট খাজনা ও নিট খাজনা বা অর্থনৈতিক খাজনার মধ্যে পার্থক্য দাও। অথবা, মোট খাজনা ও নিট খাজনা কাকে বলে? মোট খাজনা ও নিট খাজনার মধ্যে পার্থক্য দাও। অথবা, মোট খাজনা ও বিশুদ্ধ খাজনার মধ্যে পার্থক্য দাও।

খাজনা: সাধারণ অর্থে খাজনা বলতে জমি, গাড়ি, বাড়ি প্রভৃতি ব্যবহারের জন্য মালিককে যে অর্থ প্রদান করা হয় তাকে খাজনা বলে। কিন্তু অর্থনীতিতে খাজনা শব্দটি বিশেষ অর্থে ব্যবহৃত হয়। অর্থনীতিতে খাজনা বলতে বিশুদ্ধ খাজনা বা অর্থনৈতিক খাজনা বুঝায়। অর্থাৎ ভূমি ও অন্যান্য প্রাকৃতিক সম্পদ ব্যবহারের জন্য তার মালিককে যে অর্থ দেয়া হয় তাকে খাজনা বলে। খাজনা দু'প্রকার; যথা ১। মোট খাজনা এবং ২। নিট খাজনা।

১ । মোট খাজনা: কোনো নির্দিষ্ট জমি বা বাড়ি ব্যবহারের জন্য ব্যবহারকারী তার মালিককে সর্বমোট যে পরিমাণ অর্থ প্রদান করে তাকে 'মোট খাজনা' বলা হয়। একটি চুক্তির ভিত্তিতে এ অর্থ প্রদান করা হয় বলে একে 'চুক্তিবদ্ধ খাজনা'ও বলা হয়। মোট খাজনার মধ্যে বিভিন্ন উপাদান সন্নিবেশিত থাকে। যেমন- জমি ব্যবহারের জন্য দেয় অর্থ, জমিতে মালিকের নিয়োজিত মূলধনের জন্য সুদ, মালিক কর্তৃক জমি তত্ত্বাবধান করার জন্য মজুরি, ভূমি সংস্কার প্রভৃতি এসব আয়ের সমষ্টিকেই মোট খাজনা (Gross rent) বলা হয়।

২। নিট খাজনা: অর্থনীতিতে নিট খাজনা বলতে শুধুমাত্র জমি ব্যবহার করার জন্য এর মালিককে যে অর্থ দেয়া হয় তাকে নিট খাজনা (Net rent) বলা হয়। নিট খাজনাকে 'বিশুদ্ধ খাজনা' বা 'অর্থনৈতিক খাজনা' (Economic rent) বলা হয়। সুতরাং কেবলমাত্র ভূমি ব্যবহারের জন্য এর মালিককে যে অর্থ দেয়া হয়, তাকে নিট খাজনা (Net rent) বলা হয়।

মোট খাজনা ও নিট খাজনার মধ্যে পার্থক্যঃ মোট খাজনা ও নিট খাজনার মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। মোট খাজনা ও নিট খাজনা বা অর্থনৈতিক খাজনার মধ্যে প্রধান পার্থক্যগুলো নিম্নে আলোচনা করা হলোঃ

১। সংজ্ঞাগত পার্থক্যঃ কোনো জমি বা বাড়ি একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ব্যবহারের বিনিময়ে ব্যবহারকারী তার মালিককে সর্বমোট যে পরিমাণ অর্থ প্রদান করে তাকে মোট খাজনা বলে। এক্ষেত্রে ভূমি ব্যবহারের মূল্য ছাড়াও ভূমিতে নিয়েজিত মূলধনের সুদ, ভূমি তত্ত্বাবধানের জন্য মজুরি, ভূমি সংস্কার প্রভৃতি কাজের ঝুঁকি বহনের জন্য প্রাপ্য মুনাফা প্রভৃতি অন্তর্ভুক্ত থাকে। পক্ষান্তরে, কেবলমাত্র ভূমি ব্যবহারের জন্য ভূমির মালিককে যে পরিমাণ অর্থ প্রদান করা হয় তাকে নিট খাজনা বা অর্থনৈতিক খাজনা বলা হয়।

২। পরিধিগত পার্থক্যঃ মোট খাজনার পরিধি নিট খাজনার পরিধির তুলনায় অনেক বেশি বিস্তৃত। কারণ খাজনা মোট খাজনার অন্তর্ভুক্ত একটি উপাদান মাত্র। এজন্য মোট খাজনার পরিধি অপেক্ষাকৃত ব্যাপক ও বিস্তৃত।

৩। উপাদানগত পার্থক্যঃ মোট খাজনার মধ্যে অনেকগুলো উপাদান অন্তর্ভুক্ত থাকে। যেমন- ভূমি ব্যবহারের জন্য প্রদত্ত অর্থ, মূলধন ব্যবহারের জন্য সুদ, ভূমি তত্ত্বাবধান ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য মজুরি এবং ঝুঁকি গ্রহণের জন্য মুনাফা ইত্যাদি। কিন্তু নিট খাজনার মধ্যে শুধুমাত্র একটি উপাদান অন্তর্ভুক্ত থাকে, তা হলো ভূমি ব্যবহারের জন্য প্রদত্ত অর্থ।

৪। চুক্তিভিত্তিক খাজনা ও অর্থনৈতিক খাজনাঃ মোট খাজনার বেলায় সাধারণত ব্যবহারকারী ও মালিকের মধ্যে পূর্বচুক্তি অনুযায়ী নির্ধারিত হয়। এজন্য মোট খাজনাকে চুক্তিবদ্ধ খাজনা বলা হয়। অন্যদিকে, নিট খাজনা বলতে অর্থনৈতিক খাজনাকেই বুঝানো হয়।

৫। অংশগত পার্থক্যঃ মোট খাজনা হলো খাজনা হিসেবে প্রাপ্ত সর্বমোট অর্থ। কিন্তু খাজনা মূলত মোট খাজনার একটি অংশ মাত্র।

৬। পরিমাপগত পার্থক্যঃ মোট খাজনা পরিমাপ করা সহজ। কারণ মোট খাজনা পরিমাপের সময় ভূমিসহ অন্যান্য উপাদানের জন্য প্রদত্ত অর্থ যোগ করতে হয়। অন্যদিকে, নিট খাজনা পরিমাপ করা বেশ জটিল। কারণ নিট খাজনা পরিমাপের সময় মোট খাজনা থেকে ভূমি ছাড়া অন্যান্য উপাদানের জন্য প্রদত্ত অর্থ বাদ দিতে হয়।

৭। অন্তর্ভুক্তগত পার্থক্যঃ মোট খাজনার মধ্যে নিট খাজনা অন্তর্ভুক্ত থাকে। কিন্তু নিট খাজনার মধ্যে মোট খাজনা অন্তর্ভুক্ত থাকে না।

৮। সূত্রগত পার্থক্যঃ মোট খাজনা নিট খাজনা মূলধনের সুদ তত্ত্বাবধান ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য মজুরি ঝুঁকি গ্রহণের জন্য প্রদত্ত মুনাফা। অন্যদিকে, নিট খাজনা মোট খাজনা (মূলধনের সুদ তত্ত্বাবধান ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য মজুরি + ঝুঁকি বহনের মুনাফা)।

৯। উদাহরণগত পার্থক্যঃ ধরা যাক, একজন ভাড়াটিয়া কোনো বাড়ির মালিককে প্রতি মাসে বাড়ি ভাড়া বাবদ ৪,০০০ টাকা প্রদান করে। এটা হলো খাজনা। এই ৪,০০০ টাকার মধ্যে মূলধন ব্যবহারের সুদ বাবদ ১,০০০ টাকা, তত্ত্বাবধান ও রক্ষণাবেক্ষণ বাবদ ৫০০ টাকা, ঝুঁকি বহনের জন্য ১,০০০ টাকা এবং জমি ব্যবহারের জন্য ১,৫০০ টাকা প্রদান করা হয়। এখানে জমি ব্যবহারের জন্য প্রদত্ত ১,৫০০ টাকাই হলো নিট খাজনা।

পরিশেষে বলা যায় যে, মোট খাজনা ও নিট খাজনার যথেষ্ট পার্থক্য রয়েছে। নিট খাজনার তুলনায় মোট খাজনা একটি বৃহত্তর ধারণা। তবে অর্থনৈতিক দৃষ্টিকোণ থেকে মোট খাজনার তুলনায় নিট খাজনা বা অর্থনৈতিক খাজনা অধিকতর গুরুত্বপূর্ণ।

আপনার আসলেই দৈনিক শিক্ষা ব্লগর একজন মূল্যবান পাঠক। খাজনা কাকে বলে? মোট খাজনা ও নিট খাজনা বা অর্থনৈতিক খাজনার মধ্যে পার্থক্য দাও এর আর্টিকেলটি সম্পন্ন পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ ধন্যবাদ। এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনার কেমন লেগেছে তা অবশ্যই আমাদের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url